টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ প্রাণ গেল আরো চার নাগরিকের, পুলিশের দাবি সবাই ‘মাদক ব্যবসায়ী’

নিজস্ব প্রতিনিধি
কক্সবাজার: কক্সবাজারের টেকনাফে কথিত বন্দুকযুদ্ধে চার ব্যক্তি নিহত হয়েছেন বলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। বাহিনীর দাবি, নিহত ব্যক্তিরা সবাই মাদক ব্যবসায়ী।

শুক্রবার ভোররাতে উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নে পৃথক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এই চারজন নিহত হন বলে জানানো হয়েছে।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) টেকনাফ-২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. আসাদুদ-জামান চৌধুরী সকালে বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ভাষ্য, দুজন পুলিশের সঙ্গে এবং দুজন বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

‘বন্দুকযুদ্ধের’ ব্যাপারে বিস্তারিত এখনো জানানো হয়নি।

অনেক জল্পনা-কল্পনার পর মাদক চোরাচালানের ‘স্বর্গরাজ্য’ হিসেবে পরিচিত কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় গত ১৬ ফেব্রুয়ারি শতাধিক ইয়াবা ব্যবসায়ী প্রশাসনের কাছে আত্মসমর্পণ করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার শপথ নেন। পরে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

দেশে মাদকবিরোধী অভিযান শুরুর পর জেলায় প্রায় প্রতিদিনই ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সন্দেহভাজন মাদক কারবারিদের হতাহতের ঘটনা ঘটছে। এ সময় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শুধু কক্সবাজারেই ৪২ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে টেকনাফ উপজেলাতেই নিহতের সংখ্যা ৩৯ জন। তাদের মধ্যে ২৫ জন টেকনাফের বিভিন্ন গ্রামের বাসিন্দা। রয়েছেন দুজন জনপ্রতিনিধিও।