রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা নিয়ে আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে এইউবির অধ্যাপক মিজান

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকা: এবার রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিভিন্ন বিষয় আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে তুলে ধরলেন এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের প্রধান শেখ আসিফ শাহরিয়া মিজান।

তিনি গেল ১৫ থেকে ১৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত ভারতের মাদ্রাজ বিশ্ববিদ্যালয়ে Indian Political Science Association আয়োজিত ৩ দিন ব্যাপী ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্সে “Human Rights Violation of Rohingya: Bangladesh- Myanmar Perspectives” শিরোনামে একটি গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

এতে তিনি দীর্ঘদিন থেকে বিশেষ করে ২৫ আগস্ট থেকে মানায়ানমারের রাখাইনে দেশটির সেনাবাহিনী ও চরমপন্থী বৌদ্ধদের দ্বারা জাতিগত নিধনের লক্ষ্যে চালানো রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর গণহত্যা, ধর্ষণ, বাড়িঘর আগুনে পোড়ানোসহ নানা মানবাধিকার লঙ্ঘনের বর্ণনা ও তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেন। এছাড়াও প্রাণভয়ে নিজেদের ঘরবাড়ি ও সম্পদ ফেলে বাঁচানোর জন্য কক্সবাজারে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের খোলা আকাশের নীচে রোদ-বৃষ্টি ও শীতে চরম মানবেতর জীবনযাপনসহ বিভিন্ন দুর্দশার বর্ণনাও তুলে ধরেন তিনি।

রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা নিয়ে আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে এইউবির অধ্যাপক

এর আগে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের প্রধান শেখ আসিফ শাহরিয়া মিজান ওই কনফারেন্সে যোগদানের উদ্দেশ্যে চেন্নাই গমন করেন। ১৫-১৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত কনফারেন্সে প্রবন্ধ উপস্থাপন ছাড়াও তিনি বিভিন্ন অধিবেশনে গেস্ট অব অনার হিসেবে যোগদান করেন।

সেমিনারে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, মালয়েশিয়া, শ্রীলংকা, বাংলাদেশ ও ভারত ছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

এ প্রসঙ্গে শেখ আসিফ শাহরিয়া মিজান বলেন, আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদের সামনে এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করতে পেরে সত্যিই নিজেকে ধন্য মনে করছি। কেননা, কনফারেন্সে বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা প্রবন্ধটির প্রশংসা করেছেন।

প্রসঙ্গত, মায়ানমারের রাখাইন রাজ্যে দীর্ঘদিন থেকেই রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন চলে আসলেও গত ২৫ আগস্ট থেকে মায়ানমার সেনাবাহিনীর জাতিগত নিধনের শিকার হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে অন্তত ৬ লাখ রোহিঙ্গা। যারা কক্সবাজারের বিভিন্ন অস্থায়ী ক্যাম্পে আশ্রয় নিয়েছে। এছাড়াও সবমিলে বর্তমানে বাংলাদেশে ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী শরণার্থী হিসেবে অবস্থান করছে।

এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের প্রধান শেখ আসিফ শাহরিয়া মিজান