পরীক্ষিত বন্ধুকে বঙ্গভবনে বিরল সম্মাননা

নিউজ ডেস্ক
ঢাকা: রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেছেন, বাংলাদেশ সকল প্রতিবেশী দেশ বিশেষ করে সুপ্রতিবেশীর চেতনাসহ ভারতের সঙ্গে সম্পর্ককে অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে।

বুধবার বঙ্গভবনে নৈশভোজের আগে ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির সৌজন্য সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রপতি হামিদ বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে এবং এ সম্পর্ক জোরদার হচ্ছে। খবর বাসসের।

রাষ্ট্রপতি হামিদ আয়োজিত নৈশভোজে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বেশ কয়েকজন মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য এবং পদস্থ কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদিন বাসসকে এ কথা জানান।

আবদুল হামিদ বলেন, ভারত বাংলাদেশের পরীক্ষিত বন্ধু। ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক ও দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক বিশেষ করে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতের অসামান্য অবদানের কথা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করে বলেন, ১৯৭১ সালেই দু’দেশের মধ্যে সম্পর্কের ভিত্তি স্থাপিত হয়।

ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশের চমৎকার উন্নয়নের প্রশংসা করে বলেন, গত কয়েক বছরে এ দেশের সার্বিক উন্নয়ন ও অগ্রগতি দেখে তিনি অভিভূত।

প্রণব মুখার্জির বরাত দিয়ে প্রেস সচিব বলেন, ‘ভারতের রাষ্ট্রপতি হিসেবে আমি প্রথম বাংলাদেশ সফর করি… এবং এখন সাবেক রাষ্ট্রপতি হিসেবে আমি প্রথম বাংলাদেশ সফর করছি।’

চট্টগ্রাম সফরের কথা উল্লেখ করে প্রণব মুখার্জি বলেন, বাংলাদেশের জনগণের আতিথেয়তায় তিনি বিস্মিত।
তিনি প্রবীণ বাঙালি যোদ্ধা এবং ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামী মাস্টারদা সূর্য সেনের স্মৃতি রক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান।

আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশ আরো উন্নয়ন ও অগ্রগতির দিকে এগিয়ে যাবে বলে ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এ সময় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, প্রণব মুখার্জির কন্যা শর্মিষ্ঠা মুখার্জি এবং সংশ্লিষ্ট সচিবরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় প্রণব মুখার্জি বঙ্গভবনে পৌঁছলে রাষ্ট্রপতি হামিদ তাকে স্বাগত জানান।