‘দুটো স্বপ্নের একটাও বাস্তব হয়নি’

বিনোদন ডেস্ক
ঢাকা: সবারই নিজের জীবনের জন্য ভালো লাগে, সবাই নিজেকে নিজের জন্যই ভালোবাসে। আমিও নিজের জীবনকে ভালোবাসি। তবে যখন দুঃখের কিছু ঘটে তখন মনে হয় জীবনটা দুঃখময়। আবার যখন আনন্দের কিছু ঘটে তখন মনে হয় জীবনটা অনেক আনন্দময়।

নিজের ভালো থাকা কিংবা মন্দ থাকা নিয়ে এমনই সাবলীল মন্তব্য করলেন প্রখ্যাত রন্ধনশিল্পী কেকা ফেরদৌসি। এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন তিনি।

কেকা ফেরদৌসী নিজের স্বপ্ন নিয়ে কথা বলেন। কেকা ফেরদৌসী বলেন, স্বপ্ন এমন একটা জিনিস যেটা বয়সের সাথে সাথে পালটে যায়। ছোট বেলায় যখন বাংলা সিনেমা দেখতাম তখন মনে হতো আমি বড় হয়ে বাংলা সিনেমার নায়িকা হবো। যখন বড় হতে শুরু করলাম, পড়ালেখা শিখতে লাগলাম তখন মনে হলো আমিও জিওগ্রাফিতে পড়ে সিটি প্ল্যানার হবো। এ দুটো স্বপ্নের একটাও বাস্তব হয়নি।

তিনি বলেন, আরেকটু বড় হয়ে মনে হলো আমি রান্না নিয়ে কাজ করবো। রান্না আমার ভালো লাগতো। সেই থেকে রান্নাতেই মনোনিবেশ করলাম। রান্না করতে ভালো লাগে। এক সময় রান্না দিয়ে খ্যাতি পেতে শুরু করলাম। পেতে লাগলাম পুরস্কার। অনেক আন্তর্জাতিক পুরস্কারও পেয়েছি। এখন তো দেশ বিদেশে রান্নার বিচারক হিসেবেও কাজ করছি। এইতো কয়েকদিন পর বাইরে যাবো একটা রান্নার অনুষ্ঠানের বিচারক হয়ে।

বাংলাদেশের এই রন্ধন বিশেষজ্ঞ বলেন, একজন রন্ধন বিশেষজ্ঞের অনেক গুলো স্বপ্ন থাকতে পারে। আমারও স্বপ্ন ছিল, কিছুদিন আগে আমার সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। আমার একটি রান্নার স্কুল তৈরি হয়েছে। যেটা আমার পরবর্তীতে বড় স্বপ্ন হয়ে উঠেছিল। স্কুলের নাম কেকা ফেরদৌসীর রান্নাঘর।

কেকা ফেরদৌসী বলেন, এই যে আমি যে বয়সে এসে উপনীত হয়েছি। আমার মনে হলো এই সময় এদেশের মানুষের জন্য আমার কিছু করা উচিৎ। সেই চিন্তা থেকেই আমরা কুকিং এসোশিয়েশন নামে একটি সংগঠন করেছি। এই এসোশিয়েশনের মধ্য দিয়ে গরিব মেয়েদের রান্না শিখিয়ে স্বাবলম্বী করে তুলবো।

আপনাকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মজা করা হয় বিষয়টি জানেন? কেকা বলেন, আসলে আমি যে জানি না তা নয়। আমার বন্ধু বান্ধবরা আমাকে মাঝে মাঝে এটা সেটা দেখান বলে, ‘এই দেখ তোকে নিয়ে মজা করা হয়েছে।’ আমার যে মন খারাপ হয় না তা নয়। আমি তো রান্না করি এটাকে নিয়ে ব্যঙ্গকরা উচিত? তবে আমি এসব কিছু মনে করি না, আমি কেকা ফেরদৌসী এতোদিনের সাধনার পর এখানে এসেছি। কে কি বলছে তাতে আমার যায় আসে না। আমি আমার জায়গাতেই থাকবো।

আজ ৪ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার পূর্ণ হলো কেকা ফেরদৌসীর টেলিভিশনে রান্নার ২৫ বছর। এই উপলক্ষ্যে ক্যামেরার সামনে আসেন গুণী এই রন্ধন বিশেষজ্ঞ।