সময়মতো ভোট দিতে যান, কারচুপি না হলে আমরাই জিতব: ড. কামাল

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকা: দেশের অসংখ্য তরুণ, যারা এবার প্রথম ভোটার, তাদের সকাল সকাল ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) এক সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানান তিনি।

ড. কামাল হোসেন বলেন, তরুণ, তোমরা যারা প্রথমবার ভোট দেয়ার সুযোগ পেয়েছো, সময়মতো ভোট দিতে যাবে। মনে রাখবে, ‘হে তরুণ, যদি তুমি ভয় পাও তবেই তুমি শেষ, যদি তুমি ঘুরে দাঁড়াও, তবে তুমিই বাংলাদেশ।’

দেশের সবকেন্দ্রের প্রিজাইডিং এবং পোলিং অফিসারসহ ভোটগ্রহণের দায়িত্বে যারা আছেন তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনার উপর যে দায়িত্ব তা সততার সঙ্গে পালন করবেন। এটা করলে আপনাদের সম্মান বাড়বে। ভোটারের মুখের হাসির ওপরই নির্ভর করছে আপনার দায়িত্ব পালনে সফলতা ও তৃপ্তি।

ড. কামাল হোসেন বলেন, ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে কোনো বিভেদ নেই। এ ছাড়া জনগণকে ভয় না পেয়ে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে কামাল হোসেন বলেন, নির্বাচনে অংশ নেওয়া নিয়ে কোনো রকম দ্বিধাদ্বন্দ্ব নেই। তিনি আরও বলেন, জনগণ তাদের পক্ষে ভোট দেবেন। তিনি বলেন, ‘যদি দুই নম্বরি তথা কারচুপি না হয়, তাহলে আমরাই জিতব।’

এ সংবাদ সম্মেলনের আগে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা মতিঝিলে কামাল হোসেনের চেম্বারে বৈঠক করেন। বিকেল চারটায় সংবাদ সম্মেলনের পরেই বিদেশি সাংবাদিকদের সঙ্গে আরেকটি সংবাদ সম্মেলন করেন তারা।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচন থেকে শেষ মুহূর্তে সরে যাবে, ক্ষমতাসীন দলের এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে কামাল হোসেন বলেন, ‘আমরা নিজস্বভাবে সরে যাব না।’

সংবাদ সম্মেলনে কামাল হোসেন লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান। সেখানে তিনি বলেন, জনগণ ভয় না পেয়ে ভোট দিতে গেলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যাবে।

তরুণদের উদ্দেশে বলেন, যারা প্রথমবার ভোট দেওয়ার সুযোগ পেয়েছেন, তারা যেন সময়মতো নিজের ভোট দিতে যান। প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও সশস্ত্র বাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানিয়ে বলেন, তারা যেন দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করে। এ ছাড়া জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত করার জন্য নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের প্রতি আহ্বান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির নজরুল ইসলাম খান, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, গণফোরাম থেকে সুব্রত চৌধুরী, মোস্তফা মহসিন মন্টু, জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রমুখ।