মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাইরে কেউ থাকবে না, স্বাধীনতাবিরোধীদের চিরতরে নির্মূলে ম্যান্ডেট পেয়েছি: ১৪ দল

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকা: আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশ চলতে থাকবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী বাংলাদেশ সরকার হবে। বিরোধী দলে যারা থাকবে তারাও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী হবে। এই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে আমরা বাংলাদেশ থেকে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিকে চিরতরে নির্মূল করার জন্য জনগণের কাছ থেকে যে ম্যান্ডেট পেয়েছি, এটা আমরা অব্যাহত রাখার চেষ্টা করবো। আমরা সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাবো।

বৃহস্পতিবার ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে ক্ষমতাসীন ১৪ দলীয় জোট ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন।

এসময় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি হাসানুল হক ইনু ও সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান, গণআজাদী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট এস কে শিকদার, তরিকত ফেডারেশনের সভাপতি নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী, ন্যাপের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মো. ইসমাইল হোসেন, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়–য়া, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে টানা তৃতীয়বারের মতো আওয়ামী লীগ তথা মহাজোট জনগণের ভালোবাসা নিয়ে জয় লাভ করেছে। আমি মনে করি, জনগণ প্রধানমন্ত্রীর ওপর যে আস্থা রেখেছে, আমাদের চ্যালেঞ্জ হলো অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যেতে হবে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ জঙ্গিমুক্ত হয়েছে, আজকে আলোকিত বাংলাদেশ হয়েছে, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ঘটেছে, তথ্য প্রযুক্তির বিকাশ ঘটেছে। তরুণ সমাজ এবং নারীরা পর্যন্ত আজকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার শক্তির বিজয়ের জন্য কাজ করেছে।

এবার সংসদে শক্তিশালী বিরোধী দল প্রতিষ্ঠা হবে কিনা- সাংবাদিকদের এমন এক প্রশ্নের জবাবে নাসিম বলেন, আমাদের সবারই আশা, যারা বিরোধী আসনে বসবে, সংখ্যায় যতই কম হোক না কেন, তারা ভূমিকা রাখতে পারবে। সরকারকে সহযোগিতা করতে পারবে। গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়ার জন্য, গণতন্ত্রকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য তারা ভূমিকা রাখবে।