দশম সংসদ না ভেঙে নতুন শপথগ্রহণ কেন অবৈধ নয়, স্পিকারসহ ৩জনকে লিগ্যাল নোটিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকা: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর ৩ জানুয়ারি নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথ নেওয়ার বিষয়টির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে তিনজনকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

নোটিশ প্রাপ্তরা হলেন, জাতীয় সংসদের স্পিকার, প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও মন্ত্রিপরিষদ সচিব। তাদেরকে আগামী ১৩ জানুয়ারির মধ্যে এই লিগ্যাল নোটিশের উত্তর দিতে বলা হয়েছে।

জানা যায়, দশম সংসদ না ভেঙে নতুন করে শপথগ্রহণ কেন অবৈধ নয়, এমন অভিযোগ এনে মঙ্গলবার সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন এ নোটিশ পাঠান।

তিনি বলেন, ‘পূর্বের সংসদের মেয়াদ শেষ না হওয়া পর্যন্ত তারা দায়িত্ব পালন করবেন। এতে সংবিধান লঙ্ঘন করা হয়েছে।’

আগামী ১৩ জানুয়ারির মধ্যে এই লিগ্যাল নোটিশের উত্তর না দিলে পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান এই আইনজীবী।

প্রসঙ্গত, ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে শেরেবাংলা নগরের সংসদ ভবনের পূর্ব ব্লকের প্রথম লেভেলের শপথকক্ষে মহাজোটের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যরা শপথ গ্রহণ করেন। জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথবাক্য পাঠ করান।

এর আগে ২ জানুয়ারি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের গেজেট প্রকাশের পর শপথ গ্রহণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে স্পিকারকে চিঠি দেয় নির্বাচন কমিশন।

পরে ৭ জানুয়ারি বিকেল সাড়ে ৪টায় নতুন মন্ত্রিসভা ঘোষণা করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম। এরই আলোকে সোমবার বিকেলে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ৪৭ সদস্যের মন্ত্রিপরিষদ শপথ গ্রহণ করে।