ছাত্রশিবিরের নতুন সভাপতি মোবারক, সেক্রেটারি সিরাজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকা: বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সহযোগী ছাত্র সংগঠন হিসেবে পরিচিত বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের ২০১৯ সেশনের নতুন সভাপতি নির্বাচিত হয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র ও শিবিরের সাবেক সেক্রেটারি ড. মোবারক হোসাইন। অন্যদিকে নতুন সেক্রেটারী জেনারেল মনোনীত হয়েছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সাবেক ছাত্র ও সংগঠনটির সাবেক দপ্তর সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম।

বুধবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই খবর জানায় সংগঠনটি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বুধবার (৯ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় ছাত্রশিবিরের সহকারী নির্বাচন কমিশনার মতিউর রহমান আকন্দের পরিচালনায় রাজধানীর শহীদ আব্দুল মালেক মিলনায়তনে ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় কার্যকরী পরিষদের সম্মেলনে নবনির্বাচিত কেন্দ্রীয় সভাপতির নাম ঘোষণা করেন ছাত্রশিবিরের প্রধান নির্বাচন কমিশনার তাসনিম আলম। নাম ঘোষণার পর নবনির্বাচিত সভাপতিকে শপথ পাঠ করান ছাত্রশিবিরের প্রধান নির্বাচন কমিশনার তাসনিম আলম।

সূত্র থেকে জানা যায়, গত ৭ জানুয়ারি সকাল ৯টা থেকে থেকে ৮ জানুয়ারি রাত ৯টা পর্যন্ত সারাদেশে অনলাইনের মাধ্যমে একযোগে কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হয়। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভোট গণনা শেষে নতুন সভাপতি হিসেবে মোবারকের নাম ঘোষণা করা হয়।

পরবর্তীতে ছাত্রশিবিরের সংবিধান অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সভাপতি ২০১৯ সেশনের জন্য কার্যকরী পরিষদের সঙ্গে পরামর্শ করে সিরাজুল ইসলামকে সেক্রেটারি জেনারেল হিসেবে মনোনয়ন দেয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সংগঠনটির নবনির্বাচিত কেন্দ্রীয় সভাপতি ড. মোবারক হোসাইন আগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি, কেন্দ্রীয় শিক্ষা সম্পাদক, সাহিত্য সম্পাদক, দপ্তর সম্পাদক ও ২০১৭-২০১৮ সেশনে সেক্রেটারি জেনারেলের দায়িত্ব পালন করেন।

তারা জানায়, নবনির্বাচিত সভাপতি ড. মোবারক হোসাইন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিবিএ, নর্দার্ণ ইউনিভার্সিটি থেকে এমবিএ, সিটি ইউনিভার্সিটি থেকে এলএলবি সম্পন্ন করার পর ভারতের রাজস্থানের শ্রী জে জে টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন। বর্তমানে তিনি কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট একাউন্টিং (সিএমএ) বিষয়ে অধ্যয়নরত আছেন।

অপরদিকে, সংগঠনটির নব মনোনীত সেক্রেটারি জেনারেল সিরাজুল ইসলাম এর আগে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সভাপতি, কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি সম্পাদক, বিজ্ঞান সম্পাদক, সাহিত্য সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন।

সিরাজুল ইসলাম বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) থেকে নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগে স্নাতক ও একই বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করেন। বর্তমানে তিনি অন্য আরেকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে এমবিএ-তে অধ্যয়নরত আছেন।

ছাত্রশিবিরের উক্ত সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি ও বাংলাদেশ জামায়াত ইসলামীর কেন্দ্রীয় সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল রফিকুল ইসলাম খান, সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর সেলিম উদ্দিন, সদ্য বিদায়ী কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাতসহ কার্যকরী পরিষদের অন্যান্য সদস্যরা।