শ্রমিক সেলিনা আক্তারের মৃত্যু, আগুণের উত্তপ্তি গ্যাস সিলিন্ডারের পাইপ থেকে

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকা: গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর এলাকার গিলারচালা গ্রামে রান্নার কাজে ব্যবহৃত গ্যাস সিলিন্ডারের পাইপ থেকে সৃষ্ট আগুনে সেলিনা আক্তার (৩৫) নামের এক কারখানা শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা গেছেন। আগুনে চারটি বসতঘর ভস্মীভূত হয়েছে। মঙ্গলবার ভোররাত পৌনে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত কারখানার শ্রমিক সেলিনা সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের নুরুল হকের মেয়ে। তার দুই শিশুসন্তানসহ গিলারচালা গ্রামে শহিদুল ইসলামের বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি জুতা তৈরির কারখানায় চেকার পদে চাকরি করতেন।

নিহতের স্বজন জুয়েল মিয়া জানান, সেলিনা দুই সন্তানের জননী। তাঁর স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করে অন্যত্র বসবাস করায় তিনি শ্রীপুরের একটি কারখানায় চাকরি নেন। এক সন্তান তাঁর বাবার বাড়িতে থাকেন। মঙ্গলবার ভোররাতে সেলিনা ঘুম থেকে উঠে রান্নার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এ সময় সিলিন্ডারের পাইপ লিকেজ হয়ে পুরো বাড়িতে গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে। চুলায় আগুন ধরানোর সঙ্গে সঙ্গে চারটি টিনশেড ঘর ভস্মীভূত হয়। এ সময় বাসায় থাকা অন্য লোকজন বের হয়ে আসতে পারলেও সেলিনা বের হতে না পেরে অগ্নিদগ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ সময় আরেক সন্তান অন্য ঘরে থাকায় রক্ষা পায়।

শ্রীপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আল আমিন জানান, সংবাদ পেয়ে লাশ উদ্ধার করে শ্রীপুর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। পাইপে লিকেজ থাকায় আগুন পুরো বাড়িতে ছড়িয়ে পড়ে। পরে বিস্ফোরিত অবস্থায় সিলিন্ডারটি উদ্ধার করা হয়েছে।

শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আহসান উজ্জামান বলেন, লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।