১১ হাজার অবৈধ বিদেশি, সরকারি খরচে ফেরত পাঠানোর পরিকল্পনা

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশে অবৈধভাবে বসবাসকারী বিদেশি নাগরিকদের নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর জন্য আলাদভাবে অর্থ বরাদ্দ করতে বলছে সরকারের একটি মন্ত্রিসভা কমিটি।

সরকারের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক একথা জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিৎসভা কমিটির বৈঠকের পর সাংবাদিকদের কাছে এই মন্তব্য করেন মি. হক।

মি. হক বলেন, “এরকম অবৈধ অভিবাসীদের অনেকের কাছেই দেশে ফিরে যাওয়ার টাকা নেই, তারা যেসব দেশের নাগরিক সেসব দেশের দূতাবাসও নেই বাংলাদেশে।”

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থাকা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, “ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যাওয়ার পরও যেসব বিদেশি নাগরিক অবৈধভাবে থেকে গিয়েছেন অথবা যারা অপরাধের সাথে জড়িত হয়েছেন, এরকম অনেকে বাংলাদেশে কারাগারে রয়েছেন।”

“অনেকের কারাভোগের মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে। সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর দূতাবাসের সাথে যোগাযোগ করার পরও তারা ঐ ব্যক্তিদের ফিরিয়ে নেয়ার উদ্যোগ নিচ্ছে না।”

মি. কামাল জানান কারাগারে বন্দী কিংবা অপরাধের সাথে জড়িথ থাকা অবৈধ বিদেশি নাগরিক বাদেও অনেক বিদেশি নাগরিক রয়েছেন যারা ব্যবসা বাণিজ্য করতে এসে নিজেদের অজান্তেই ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ করে ফেলেছেন এবং বাংলাদেশ থেকে ফিরে যেতে পারছেন না।

সব মিলিয়ে এরকম অবৈধ বিদেশি বসবাসকারীর সংখ্যা ১১ হাজারের মত বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এ কে এম মোজাম্মেল হক মন্তব্য করেন অবৈধভাবে বসবাসরত এসব বিদেশি নাগরিকদের চিহ্ণিত করতে পারলেও তাদের অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা থাকায় এদেরকে কারাগারে প্রেরণ করতে চান না তারা।

তবে এই অবৈধ নাগরিকরা মূলত কোন দেশ থেকে এসেছেন সেবিষয়ে পরিস্কার করে কিছু বলেননি তিনি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।