বছরটি স্মৃতি হয়েই থাকবে: খালেদা জিয়া

নিউজ ডেস্ক
ঢাকা: নানা কারণে বিদায়ী বছর স্মৃতি হয়ে থাকবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। ইংরেজি নববর্ষ ২০১৮ উপলক্ষে রোববার দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় তিনি এ মন্তব্য করেন। খালেদা জিয়া বলেন, ‘গেল বছর (২০১৭) এখন আমাদের মনে স্মৃতি হয়ে থাকবে। গত বৎসরের বেশকিছু তিক্ত অভিজ্ঞতা, স্বজন হারানোর বেদনা এবং অধিকার হারানোর যন্ত্রণা আগামী বৎসরে আমাদের একদিকে যেমন বেদনার্ত করবে, অন্যদিকে নুতন উদ্যোমে অধিকার ফিরে পেতে তাগিদ সৃষ্টি করবে।’

তিনি এই বার্তায় দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানান এবং তাদের সুখ-সমৃদ্ধি কামনা করেন।

সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী বিগত বছরের অভিজ্ঞতার আলোকে সুন্দর ভবিষ্যত বিনির্মাণে নতুন বছরকে সাফল্যমণ্ডিত করার কথা বলেন।

তিনি প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন, ‘বাংলাদেশসহ বিশ্বময় সংঘাত আর অশান্তির ঘটনা প্রবাহে নতুন বছরটিকে গণতন্ত্র, শান্তি ও অগ্রগতির বছরে পরিণত করতে আমাদের সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।’

খালেদা জিয়া বলেন, ‘বাংলাদেশে অজস্র রক্তঋণে অর্জিত গণতন্ত্র অপহৃত হয়েছে। গণবিরোধী শক্তি জনগণের সকল অধিকারকে বন্দি করে রেখেছে। এ অবস্থায় গণতান্ত্রিক শক্তি মিলে সংগ্রাম করে বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে।’

তিনি নতুন বছরে অন্যায়-উৎপীড়ন, নির্যাতন, হত্যা, গুম, খুন, যুদ্ধবিগ্রহ ও অমানবিকতাসহ সব ধরনের দমনমূলক নৃশংসতা বন্ধের আহ্বান জানান।

অপহৃত গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার ফিরে পাওয়ার জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করারও আহবান জানান খালেদা জিয়া।

অপর এক বার্তায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দেশবাসীকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।