আখেরি মোনাজাতে ১১টায়, হাসিনা-খালেদা যেভাবে অংশ নিচ্ছেন

নিজস্ব প্রতিনিধি
ঢাকা: বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে টঙ্গী অভিমুখে লাখো মুসল্লির ঢল নেমেছে। বেলা ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে তুরাগ তীরে এই মোনাজাত হবে। বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বয়ান মঞ্চে বসে মোনাজাতে অংশ নেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে।

অন্যদিকে মুসল্লিদের ভোগান্তির ও নিরাপত্তার স্বার্থে টঙ্গীর বাটা সু’ ফাক্টরির ছাদে বসে আখেরি মোনাজাতে অংশগ্রহণের পরিবর্তে ঢাকায় অবস্থান নিয়ে বিশেষ ব্যবস্থায় এবারও ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মোনাজাতে অংশ নিবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের একটি সূত্র এই তথ্য জানিয়েছেন।

একইভাবে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া হোন্ডা (এটলাস) কারখানার ছাদে বসে অংশ নেয়ার পরিবর্তে ঢাকায় বাসায় অবস্থান নিয়ে বিশেষ ব্যবস্থায় মোনাজাতে অংশ নিতে পারেন বলে জানা গেছে।

তবে প্রতিবারের মতো এবারো দোয়া মঞ্চের পাশে সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ আখেরি মোনাজাতে অংশ নেয়ার কথা রয়েছে বলে জানিয়েছেন গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ।

এছাড়াও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক ও স্থানীয় সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খানসহ মন্ত্রিপরিষদের একাধিক সদস্য, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারীসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও বিভাগের কর্মকর্তাগণ জেলা প্রশাসনের কন্ট্রোলরুমসহ ময়দানের বিভিন্ন স্থানে উপস্থিত হয়ে মোনাজাতে অংশ নেবেন।

প্রসঙ্গত, আয়োজকদের একাংশের প্রতিবাদের মুখে ইজতেমায় যোগ না দিয়ে শনিবার দুপুরে ঢাকা ছেড়েছেন দিল্লির মাওলানা মোহাম্মদ সাদ কান্ধলভি। ফলে বাংলায় আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন কাকরাইল মসজিদের ইমাম মাওলানা মোহাম্মদ জোবায়ের।