সেই সম্পর্ক এখনো অটুট, আবেগে আপ্লুত দুজন

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকা: টানা তৃতীয়বারের মতো জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী হতে যাওয়া শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানাতে বুধবার গণভবনে হাজির হন তার কলেজজীবনের রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী অধ্যাপক নাজমা শামস।

মন্ত্রী-সাংসদ, সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তা, সাংবাদিক, বাংলাদেশ স্কাউট ও গার্লস গাইডের সদস্যরা প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানাতে আসেন।

বাংলাদেশ স্কাউট গার্লস ইন স্কাউটিং ফোরাম জাতীয় কমিটির সভাপতি নাজমা শামস প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানাতে গেলে তারা একে অপরকে জড়িয়ে ধরেন। দুজনের হৃদ্যতাপূর্ণ আলিঙ্গন উপস্থিত সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

একে একে ক্যামেরার ফ্লশলাইটগুলো সরব হয়। তখন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীই মুখ খুলেন। জানান, তিনি যখন ইডেন কলেজের ছাত্র সংসদের ভিপি ছিলেন তখন অধ্যাপক নাজমা শামস ছিলেন জিএস। তিনি নির্বাচিত হয়েছিলেন ছাত্রলীগ থেকে, আর নাজমা শামস ছিলেন ছাত্র ইউনিয়ন থেকে। কিন্তু সম্পর্কটা ছিল আন্তরিকতায় ভরপুর। সেই সম্পর্ক এখনো অবিচল আছে।

এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেসসচিব আশরাফুল আলম খোকন বলেছেন, ‘উত্তাল দিনগুলোতে রাজপথে ছিলেন একসঙ্গে। রাজনীতির আদর্শের মতভিন্নতা ছিল। দেশের প্রশ্নে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে পাক দুঃশাসনের বিরুদ্ধে রাজপথ কাঁপিয়েছেন। সেই সম্পর্ক এখনো অটুট আছে। শত ব্যস্ততার মাঝেও দেখা হলেই স্মৃতিচারণায় মেতে ওঠেন। কৈশোরের সেই দিনগুলোতে বারবার ফিরে যান। কী রকম ছিল সেই আন্দোলনের দিনগুলো, সেই সময়ের ছাত্র রাজনীতিসহ নানা খুনসুটি।’