সময়মতো ভারতকে কঠোর জবাব: পাক প্রেসিডেন্ট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ইসলামাবাদ: পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভী বলেছেন, ‘পাকিস্তানের ক্ষতি করার ক্ষমতা কারো নেই।’ তিনি আরো বলেন, ‘ভারতের এ আগ্রাসনের জবাব সময়মতোই দেবে পাকিস্তান।’

মঙ্গলবার পাকিস্তানে বিমান হামলা চালিয়ে ৩০০ জঙ্গি হত্যার দাবি করেছে ভারত। এরই প্রতিক্রিয়ায় এসব কথা বলেন দেশটির প্রেসিডেন্ট।

ভারতের ওই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তান বলছে, বালাকোটে হামলা হয়েছে, তবে কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভী বলেন, ‘হামলার জবাব দেওয়ার ক্ষমতা পাকিস্তান সেনাবাহিনীর রয়েছে। পাকিস্তান শান্তি চাইলেও ভারত আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা বিনষ্ট করতে আজ আগ্রাসন চালিয়েছে। ভারতের এ আগ্রাসনের জবাব সময়মতোই দেবে পাকিস্তান।’

পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘পাকিস্তানের ক্ষতি করার ক্ষমতা কারো নেই। আমাদের সেনাবাহিনী জানে কীভাবে সমুচিত জবাব দিতে হবে। আমরা কারো ক্ষতি চাই না। কিন্তু নিজেকে রক্ষা করা আমাদের দায়িত্ব।’

মঙ্গলবার সকালেই ভারতের বিরুদ্ধে আকাশসীমা লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে প্রতিক্রিয়া জানান পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি।

দুপুরে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ডাকে দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা কমিটির (এনএসসি) বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

তাতে যোগ দেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রী, সেনাপ্রধান, নৌবাহিনী প্রধান ও বিমান বাহিনী প্রধানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। বৈঠক শেষে এক বিবৃতিতে বলা হয়, বালাকোটের কাছে কোনো সন্ত্রাসী ঘাঁটি ছিল না এবং ভারতের বিমান হামলায় কোনো ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানি হয়নি। পাশাপাশি অভিযোগ করা হয়, ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে ফায়দা নিতেই নরেন্দ্র মোদি সরকার এই হামলা চালিয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ দপ্তরের প্রধান মেজর জেনারেল আসিফ গফুর এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী সবাইকে যেকোনো পরিস্থিতির জন্য তৈরি থাকতে বলেছেন। আমরা সবাই প্রস্তুত। ভারতের এবার আমাদের পক্ষ থেকে জবাবের অপেক্ষার পালা।’

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের নেতৃত্বে বৈঠক শেষে গফুর জানান, জবাব দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। বেসামরিক-সামরিক নেতৃত্বের পছন্দ অনুযায়ী সময়ে ঠিক জায়গামতো জবাব দেওয়া হবে।

এদিকে হামলাস্থল দেখতে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোকেও সেখানে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করেছে পাকিস্তান।