ইন্দোনেশিয়ায় খনি দুর্ঘটনায় মাটি চাপায় ৬০ শ্রমিক নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
জাকার্তা: ইন্দোনেশিয়ার একটি অবৈধ স্বর্ণখনিতে ভূমিধ্বসে অন্তত ৬০ জনের প্রাণহানি হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সুলাওয়েসি দ্বীপের বোলাং মোঙ্গোন্দো এলাকায় উদ্ধারকারীরা খোঁজ চালিয়ে যাচ্ছেন।

ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বুধবার ভোর পর্যন্ত একজনের মৃতদেহ উদ্ধার করা গেছে এবং অন্তত ১৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, অস্থিতিশীল ভূমি এবং খনিতে অসংখ্য খাদ থাকার কারণে খনির নীচের কয়েকটি খুঁটি বিধ্বস্ত হলে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ বিষয়ক সংস্থা তাদের এক বিবৃতিতে বলেছে, অনুমান করা হচ্ছে মাটি আর পাথরের নীচে ৬০ জনের মত মানুষ চাপা পড়তে পারে।

ঘটনাস্থল থেকে পাওয়া ছবিতে দেখা যায় যে স্থানীয় মানুষ ও উদ্ধারকারীরা মাটি-কাদা পরিবেষ্টিত একটি পাহাড়ের পাশে থেকে দুর্ঘটনা কবলিতদের উদ্ধারের চেষ্টা করছেন।

ইন্দোনেশিয়ায় ছোট পরিসরে স্বর্ণের খনির কাজ করা নিষিদ্ধ হলেও গ্রামের বিভিন্ন জায়গায় ব্যাপক পরিমানে এ ধরণের খনির প্রচলন রয়েছে।

সঠিক ব্যবস্থাপনার অভাব এবং সুষ্ঠু নজরদারি না থাকায় এসব খনিতে দুর্ঘটনার ঘটনা প্রায়ই ঘটে থাকে।

স্থানীয়ভাবে যথেষ্ট কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি না হওয়াতেই মানুষ জীবিকা নির্বাহের জন্য এধরণের অবৈধ মাধ্যমে কাজ করতে বাধ্য হন বলে দীর্ঘদিন ধরে প্রচারণা চালিয়ে আসছে ইন্দোনেশিয়ার বিভিন্ন সংস্থা।