উত্তর কোরিয়া ‘রকেট ছোঁড়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
পিয়ংইয়ং: স্যাটেলাইট থেকে তোলা উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়াং-এর আশেপাশের কিছু ছবি দেখে মনে হচ্ছে দেশটি হয়তো ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ কিম্বা উপগ্রহ উৎক্ষেপণের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

সানুমডং নামে পরিচিত একটি স্থাপনার কাছে গত কয়েকদিন ধরে তৎপরতা বেড়ে যেতেও দেখা গেছে, যেখানে উত্তর কোরিয়া তার বেশিরভাগ ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও রকেট জড়ো করেছে। খবর বিবিসির

উত্তর কোরিয়ায় রকেট নিক্ষেপের মূল স্থানটি পুনর্নির্মাণ করা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের দুটো গবেষণা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে একথা বলার পরই অস্ত্র বিশেষজ্ঞরা এসব কথা বলছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যে স্থাপনায় দেশটি সবচেয়ে বেশি পরিমাণে ক্ষেপণাস্ত্র ও রকেট মজুদ করেছে, তাকে কেন্দ্র করে তৎপরতাও বেড়ে গেছে।

রাজধানী পিয়ংইয়াং-এর কাছে এই স্থাপনাটি সানুমডং নামে পরিচিত।

স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবিতে দেখা গেছে, এই স্থাপনাটির আশেপাশে বড় বড় যান চলাচল করছে।

এর আগেও এরকম পরিস্থিতিতে বোঝা গেছে যে দেশটি উৎক্ষেপণের জন্যে সেখানে ক্ষেপণাস্ত্র কিংবা রকেট জড়ো করছে।

সৌল থেকে বিবিসির সংবাদদাতা লরা বিকার বলছেন, রকেট নিক্ষেপের জন্যে উত্তর কোরিয়ার প্রধান যে স্থাপনা সেটিও নতুন করে পুনর্গঠন করা হয়েছে বলে বিশ্লেষকরা দাবি করেছেন।

বলা হচ্ছে, যে কোনো সময়ে এখান থেকে পরীক্ষামূলকভাবে রকেট কিম্বা ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হতে পারে।

তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, তারা ধারণা করছেন যে এই মুহূর্তে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা নয়, বরং উপগ্রহ উৎক্ষেপণের জন্যেই প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্র বলছে, তারপরেও এটা হবে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দেওয়া উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং আনের প্রতিশ্রুতির লঙ্ঘন।

গত সপ্তাহে এই দুই নেতার মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠকও ব্যর্থ হয়েছে।

তবে উত্তর কোরিয়ার জনগণকে এই খবরটি বহু পরে দেওয়া হয়েছে যে ওই বৈঠকে শেষ পর্যন্ত কোন সমঝোতা হয়নি।

দু’হাজার সতের সালের পর থেকে উত্তর কোরিয়া কোন ধরনের পরমাণু কিম্বা ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানো থেকে বিরত রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।