ইসলাম সম্পর্কে কটুক্তি করায় ‘ব্রিটেন ফার্স্ট’ শীর্ষ নেতা জায়ডা আটক

জায়ডা ফ্রানসেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
বেলফাস্ট: সামাজিক মাধ্যমে ইসলাম সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করায় আটক যুক্তরাজ্যের ডানপন্থী দল ‘ব্রিটেন ফার্স্ট’ এর শীর্ষ নেতা জায়ডা ফ্রানসেন (৩১) কে জামিনে মুক্তি দিয়েছে আদালত।

শুক্রবার বেলফাস্টের একটি আদালত তাকে এই জামিন প্রদান করেন।

গত বুধবার তিনি ইসলাম নিয়ে সামাজিক মিডিয়াতে পোস্ট দেন। তার আপত্তিকর মন্তব্যগুলো হুমকিমূলক আচরণের পাশাপাশি শহরের প্রোটেস্টান ও ক্যাথলিকদের মধ্য বিভক্ত তৈরি করছে বলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়।

শুক্রবার বেলফাস্টের ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সংক্ষিপ্ত শুনানি শেষে ফ্রানসেনের জামিনের আদেশ দেয়া হয়। যদিও পুলিশ তার জামিন আবেদনে আপত্তি জানিয়েছিল।

বৃহস্পতিবার দক্ষিণ পূর্ব লন্ডনের এনারলি থেকে ফ্রানসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ইসলাম নিয়ে মন্তব্যের পাশাপাশি গত আগস্ট মাসে উত্তর আয়ারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত সন্ত্রাসবাদ বিরোধী সমাবেশ নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্যের অভিযোগ আনা হয়।

ফ্রানসেনের সহসঙ্গী হিসেবে ‘ব্রিটেন ফার্স্ট’ এর আরেক নেতা পল গোল্ডিং (৩৫) কেও বৃহস্পতিবার একই আদালতে গ্রেপ্তার করা হয়।

আগস্টে বেলফাস্টের ওই একই সমাবেশে বক্তৃতা করার সময় হুমকি, আপত্তিকর ও অপমানজনক কথা বা আচরণ করার অভিযোগে পল গোল্ডিং অভিযুক্ত হন।

আগামী মাসে একই আদালতে গোল্ডিং ও ফ্রানসেনকে হাজির হওয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

জামিন মঞ্জুরের পর ফ্রানসেন উল্লাস প্রকাশ করেন। এসময় পাবলিক গ্যালারি থেকে তার সমর্থকেরাও তীব্র আওয়াজে চিৎকার করে ওঠে।

একজন পুলিশ কর্মকর্তা তার জামিনে আপত্তি জানান। তিনি আদালতকে বলেন, তাকে মুক্তি দেয়া হলে পুনরায় সে একই ধরনের অপরাধে লিপ্ত হবেন।

তিনি বলেন, ‘ফ্রানসেন তার মন্তব্যের মাধ্যমে ইসলামিক মতাদর্শের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো এবং পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য মানুষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।’

তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, পরবর্র্তীতে তার আরো অনুরূপ মন্তব্যে মুসলমানদের উপর আক্রমণের ঘটনা ঘটতে পারে।

জবাবে বিচারক ফিয়োনা বাগনাল জানান, তিনি তার উদ্বেগকে স্বীকার করছেন। তবে, ঝুঁকি কমানোর জন্য তিনি জামিনের ওপর কিছু শর্ত প্রয়োগ করবেন বলে তিনি জানান।

ইসলাম সম্পর্কে কটুক্তি করায় ‘ব্রিটেন ফার্স্ট’ শীর্ষ নেতা শীর্ষ নেতা জায়ডা ফ্রানসেন ও পল গোল্ডিং আটকের পর মুক্ত

কোনো বিক্ষোভ বা সমাবেশে অংশ নিতে হলে তাকে উত্তর আয়ারল্যান্ডের ৫০০ মিটারের মধ্যে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বিচারক আদালতকে জানান, জামিনের শর্তগুলো ঠিকমত মেনে চলা হচ্ছে কিনা তা আমরা পর্যবেক্ষণ করব।

তিনি বলেন, ‘যদি শর্তসমূহ মেনে না চলে, তবে তাকে আদালতে ফিরিয়ে আনা হবে এবং কারাগারে পাঠানো হবে।’

সূত্র: বেলফাস্ট টেলিগ্রাফ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।