পাক-ভারত সীমান্তে সংঘর্ষে প্রাণ ১০ সেনার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
জম্মু: পাকিস্তান ও ভারতের কাশ্মির সীমান্তে দুই দেশের সেনাদের মধ্যে গুলিবিনিময়ে পাকিস্তানের ৭ ও ভারতের ৩ সেনা সদস্য নিহত হয়েছে। কাশ্মিরের জানড্রোট সেক্টরে সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। তবে পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর জনসংযোগ (আইএসপিআর) থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে নিহত পাকিস্তানের সেনা সংখ্যা ৪ জন বলে উল্লেখ করা হয়েছে। খবর ডন ও ইনডিয়ান টাইমসের।

আইএসপিআরের বরাত দিয়ে ডনের খবরে বলা হয়েছে, ভারতের সেনারা পাকিস্তানের আজাদ কাশ্মিরের জানড্রোট সেক্টরে মর্টার হামলা চালিয়েছে। এর ফলে সেখানে কর্মব্যস্ত চার পাকিস্তানি সেনা প্রাণ হারায়। এরপর পাকিস্তানের সশস্ত্র বাহিনী পাল্টাহামলা চালালে তিন ভারতীয় সেনা নিহত ও কয়েকজন আহত হয়।

এদিকে ভারতের গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, পাকিস্তান সীমান্তের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে বারবার হামলা চালাতে থাকে। একপর্যায়ে সোমবার সকালে পাল্টা হামলা করে ভারত। এতে পাকিস্তানের ৭ সেনা নিহত হয়। তবে ভারতের সেনা নিহত হওয়ার বিষয়টি দেশটির পক্ষ থেকে এখনো স্বীকার করা হয়নি।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ২০১৮ সাল শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত ভারতীয় সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রণরেখা ও সীমান্তে অন্তত ৭০ বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে। এর ফলে অন্তত একজন বেসামরিক ব্যক্তি নিহত ও পাঁচজন আহত হয়েছে। গত নভেম্বরে দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী নিয়ন্ত্রণ রেখা ও সীমান্ত এলাকার নিরপরাধ মানুষদের জীবন বাঁচাতে ২০০৩ সালের যুদ্ধবিরতি চুক্তি মেনে চলার ওপর গুরুত্ব আরোপ করার পর সেখানে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পাকিস্তানের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের মহাপরিচালক জহির উদ্দিন কোরেশি বলেছেন, ২০১৭ সালের প্রথম ছয় মাসে কাশ্মিরের নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর ভারতীয় বাহিনীর গুলিতে ৮৩২ জন নিহত ও তিন হাজার মানুষ আহত হয়েছে। এছাড়া তিন হাজার ৩০০ বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।