ফের চা বিক্রি করবো, তবুও দেশ বিক্রি করবো না: মোদী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
দিল্লি: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছেন ‘আমি আবার চা বিক্রি করবো, তবও দেশকে কখনওই বিক্রি নয়’।

আসন্ন গুজরাট বিধানসভার নির্বাচন উপলক্ষে সোমবার রাজ্যটিতে এক নির্বাচনী প্রচারণায় গিয়ে কংগ্রেসকে খোঁচা মেরে নরেন্দ্র মোদী এ কথা বলেন।

রাজকোটের জাসদানে নির্বাচনী প্রচারণা থেকে প্রধানমন্ত্রীর পূর্বতন পেশা ‘চাওয়ালা’ নিয়ে সম্প্রতি কংগ্রেসের পক্ষ থেকে যেভাবে নিশানা করা হচ্ছে তার উত্তর দিতে গিয়ে মোদি বলেন, গরীব মায়ের ঘরে জন্মগ্রহণ করায় এবং তার ব্যাকগ্রাউন্ড নিয়ে দেশের প্রধান বিরোধী দল তাকে কটাক্ষ করছে।

মোদি বলেন, ‘একজন চা বিক্রেতা দেশের প্রধানমন্ত্রী হওয়ায় তারা (কংগ্রেস) অস্বস্তি বোধ করছে। আমরা বইতে পড়েছি যে, সমাজের উঁচু শ্রেণীর মানুষের দ্বারা নিম্ন শ্রেণীর মানুষরা কিভাবে নির্যাতিত হয়। কিন্তু আমি কখনও ভাবিনি যে তারা এতটা নীচে নামতে পারে’।

মোদীর দাবি, অনেকের কাছ থেকে হুমকি বার্তা দিয়ে তাকে বলা হচ্ছে পুনরায় চা বিক্রেতা হিসাবে পরিণত করা হবে।

মোদি বলেন ‘আমি তাদেরকে বলতে চাই যে, আমি মোদী যে চা বিক্রি করতে রাজি আছে তবে প্রতিজ্ঞা করছি যে, গোটা দেশকে বিক্রি করে দেওয়ার মতো পাপ কাজটা কোনদিনই করবো না’। মোদির প্রশ্ন ‘আপনারা কেন দারিদ্রতাকে উপহাস করছেন? একজন দরিদ্র মা’কে আপনারা কেন অপমান করছেন?’

জাসদান ছাড়াও এদিন কচ্চ জেলার ভুজ থেকে শুরু করে আমরেলি জেলার ছালালা ও সুরাটের কাছে কাদোদরা এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালান মোদী।

পাকিস্তানের একটি আদালতের পক্ষ থেকে সম্প্রতি লস্কর জঙ্গি হাফিজ সৈয়দকে মুক্তি দেওয়ার পরই ট্যুইট করে কংগ্রেস সহ-সভাপতি রাহুল গান্ধীর প্রশংসা, ডোকালাম ইস্যুতে চীনের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে রাহুলের সাক্ষাৎ নিয়েও রাহুলকে নিশানা করেন মোদী।

তিনি বলেন ‘চীনের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আলিঙ্গন করতে পেরে আপনার (রাহুল) ভালো লাগে।

হাফিজ সৈয়দের মুক্তির পর আপনি হাত তালি দিতে পারেন। কিন্তু ভারতীয় সেনাবাহিনীর সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর আপনি সেনাকে সম্মান জানাতে পারেন না…আপনি কেন এধরনের কথা বলেন? আপনি এব্যাপারে নীরব থাকতে পারতেন’।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।